Home / স্বাস্থ্যসেবা / অনেক পুরুষই জানেন না মিলনের পরে যে কাজগুলো করতে ছটফট করে নারী
6-1

অনেক পুরুষই জানেন না মিলনের পরে যে কাজগুলো করতে ছটফট করে নারী

কিছুক্ষণ আগে কী হলো তা নিয়ে মাথা না ঘামালেও চলে! তখন তো দুইজনেই উন্মত্ত ছিলেন! অতএব, কীভাবে ব্যাপারটা হয়ে গেল, তা টের পাওয়া বেশ মুশকিলের! কিন্তু, তারপর? সেক্স হয়ে গেলে সাধারণত নারীরা সাধারণত কিছু কাজ না করে থাকতেই পারেন না। পাঠকদের জন্য সেই বিষয়গুলো তুলে ধরা হলো

. কতক্ষণ হলো :
শোনা যায়, সেক্স হয়ে যাওয়ার পরেই না কি সবার আগে ঘড়ি দেখেন নারীরা! কারণ তো স্পষ্ট- মিলিয়ে দেখে নেওয়া এবার কতক্ষণ সময় লাগলো! বেশি সময় লাগলে বেশি তৃপ্তি, অন্যথায় খুঁতখুঁতুনি!

২. কনডমটা ছিঁড়েছে কিনা:
পুরুষরা যখন কাজকর্ম সেরে আবেশে বিভোর, নারীরা তখন চুপিসাড়ে একবার দেখে নেন ফেলে দেওয়া কনডমটা- ওটা ছিঁড়ে যায়নি তো! বিস্তারিত বলার দরকার নেই- কেন তারা এরকম করে থাকেন! গর্ভবতী হয়ে পড়লে তো তাদেরই চাপ বেশি!

৩. বক্ষে তৃষ্ণা:
এক তৃষ্ণা মেটার পরেই অন্য তৃষ্ণা নিবারণে না কি ব্যস্ত হয়ে পড়েন নারীরা! সাধারণত তাদের উন্মাদের মতো ঢকঢক করে জল খেতে দেখা যায়! যারা ধূমপান করেন, তারা তাড়াতাড়ি ধরিয়ে ফেলেন একটা সিগারেট!

৪. এক কোণে গুটিসুটি:
যদি কোনো কারণে বিছানার চাদরটা নোংরা হয়ে যায় এবং পালটানোর ইচ্ছা না থাকে, তবে নারীরা বিছানার এক কোণে গুটিসুটি হয়ে শুয়ে থাকেন। একটু আগেই ওই চাদরে গড়াগড়ি খেলেও এখন এড়িয়ে যান!

৫. চুল নিয়ে চুলবুল:
সেক্স হয়ে যাওয়ার পর সব নারীই নিজেদের চুলের দিকে একবার তাকান! যতটা পারেন, এলোমেলো চুল গুছিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন!

৬. ফোনে সময় দেওয়া:
যাদের তাড়াহুড়ো থাকে, তারা সেক্সের পরেই সবার আগে ফোনের দিকে হাত বাড়ান! বেশির ভাগ সময়েই দেখা যায়- তারা বাড়িতে ফোন করছেন!

৭. মিরর মিরর অন দ্য ওয়াল:
সেক্সের পরে অনেক নারীই আয়নায় একবার নিজের নগ্ন শরীরটা দেখে নেন! বুঝে নিতে চান- সঙ্গীর পক্ষে তিনি পর্যাপ্ত পরিমাণে আকর্ষণীয় কি না!

৮. অন্তর্বাসের খোঁজ:
সবার শেষে নারীরা হাত বাড়ান অন্তর্বাসের দিকে! পুরুষটিকে সম্পূর্ণ উপেক্ষা করেই চলতে থাকে ঘরের এখানে-ওখানে অন্তর্বাসের খোঁজ!

Check Also

eyrtdu

শারীরিক ভারসাম্যহীনতা থেকে মুক্তির ৮টি উপায়

বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে অসুবিধা হয়, পা দু’টো একটু নড়ে৷ কিংবা অল্পতেই ঢলে পড়ে যায়৷ এরকম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *