Home / খেলাধুলা / সেরা ৫ বোলার যারা :উইকেটে পকেট ভারী করেছে যারা
10_12_20161

সেরা ৫ বোলার যারা :উইকেটে পকেট ভারী করেছে যারা

সেরা ৫ বোলার যারা :উইকেটে পকেট ভারী করেছে যারা
স্পোর্টস ডেস্কঃ  বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে এবার বোলারদের সাফল্য অনেকটা আকাশচুম্বি। ব্যাট হাতে ব্যাটসম্যানরা সাফল্য না পাওয়ায় বোলাররা সাফল্য পেয়েছেন নিয়মিত। ফলে উইকেটে পকেট ভারী হয়েছে তাদের। চলুন দেখে নেই বিপিএলের চতুর্থ আসরের সেরা পাঁচ বোলারের তালিকা।
 
৫) শহীদ আফ্রিদি : পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি খেলতে এসেছিলেন রংপুর রাইডার্সের হয়ে। ব্যাট হাতে আফ্রিদি ছিলেন নিষ্প্রভ। কিন্তু বল হাতে আফ্রিদি জ্বলে উঠেছেন বিপিএলের শুরু থেকেই। ১১ ম্যাচে আফ্রিদি পকেটে পুরেছেন ১৭ উইকেট। সেরা বোলিং ১২ রানে ৪ উইকেট। গড় বোলিং ১৪.৯৪। শুরু দিকে আফ্রিদি যেই ধার নিয়ে এসেছিলেন শেষ দিকে সেই ধার ধরে রাখতে পারেননি। আফ্রিদির পারফরম্যান্সের প্রভাব পড়েছে রংপুর রাইডার্সেরও। শুরুর দিকে দূর্দান্ত খেলতে থাকা রংপুর শেষ পর্যন্ত শেষ চারেও উঠতে ব্যর্থ হয়।
 
৪) শফিউল ইসলাম : জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু শফিউলকে নিয়ে বলেছিলেন,‘শফিউল বিপিএলে দারুণ বল করছিল। একটানা ১৩টি ম্যাচ শেষ কবে খেলেছিল সেটা মনে করতে পারছি না। কিন্তু ইনজুরির কারণে শেষ পর্যন্ত খেলতে পারল না।’ সত্যিই তাই, শফিউল ইসলাম টানা ১৩টি ম্যাচে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছিলেন। ১৩ ম্যাচে শফিউল ইলামের শিকার ১৮ উইকেট। ১৭ রানে ৪ উইকেট তার সেরা বোলিং। গড় বোলিং ১৮.৩৮। বল হাতে উইকেট পাওয়ার থেকেও বড় কিছু পেয়েছেন শফিউল। দীর্ঘদিন পর শফিউল গতিময় বোলিংয়ের পাশাপাশি এক লাইন ও লেন্থ ধরে একটানা বোলিং করে গেছেন।
 
৩) মোহাম্মদ নবী : আফগানিস্তান ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী ব্যাট ও বল হাতে দুটোতেই দারুণ পারফরম্যান্স করেছেন। তার পারফরম্যান্সে ভর করে চিটাগং ভাইকিংস সাফল্যও পেয়েছে। বল হাতে অফ স্পিনার নবী ১৩ ম্যাচে নিয়েছেন ১৯ উইকেট। সেরা বোলিং ২৪ রান ৪ উইকেট। গড় বোলিং ১৫.০। পুরো বিপিএলে দু’বার ৪ উইকেটের স্বাদ পেয়েছেন এ অফস্পিনার।
 
২) জুনায়েদ খান : জুনায়েদ খানের বোলিংয়ে মুগ্ধ হয়ে ‘সুলতান অব সুইং’ ওয়াসিম আকরাম টুইটারে টুইট করেছিলেন,‘সত্যিই জুনায়েদ খানের দারুণ বোলিং উপভোগ করছি। গতিময় বোলিংয়ের পাশাপাশি অসাধারণ বৈচিত্র্য মুগ্ধ করছে। আশা করছি নির্বাচক প্যানেল তার বোলিং দেখছে।’ পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলে জুনায়ের খানের জায়গা হচ্ছে না অনেক দিন হয়ে গেল। ওয়াসিম আকরাম বিপিএলে জুনায়েদ খানের বোলিংয়ে মুগ্ধ হয়ে তাকে দলে নেওয়া দাবিও তুলেছেন। তুলবেনই না কেন? খুলনা টাইটান্সের হয়ে বাঁহাতি এ পেসার ১৪ ইনিংসে নিয়েছেন ২০ উইকেট। সেরা বোলিং ২৪/৪। গড় বোলিং ১৬.০৫। বাঁহাতের বোলিং যাদুতে খুলনাকে দারুণ সাফল্যও দিয়েছেন জুনায়েদ। দলকে নিয়ে গেছেন দ্বিতীয় প্লে’অফ পর্যন্ত।
 
১) ডোয়াইন ব্রাভো : ক্যারিবীয়ান দ্বীপপুঞ্জ থেকে তাকে উড়িয়ে আনা হয়েছিল ঢাকার হয়ে বল হাতে দূত্যি ছড়াবেন আর ব্যাট হাতে বিস্ফোরক ব্যাটিং করবেন। ব্যাটিংটা প্রত্যাশামাফিক করতে না পারলেও বোলিংটাতে ক্যারিবিয় রাজা সেরা। ১৩ ম্যাচে ডোয়াইন ব্রাভোর পকেটে ঢুকেছে ২১ উইকেট। সেরা বোলিং ১০ রানে ৩ উইকেট। ১৫.৯৫ গড়ে উইকেট নিয়েছেন ব্রাভো। ৩ উইকেটের বেশি কোনো ম্যাচে না পেলেও নিয়মিত ভালো বল করেছেন ব্রাভো। তার দূর্দান্ত স্লোয়ারে নিয়মিত বিভ্রান্ত হয়েছেন ব্যাটসম্যানরা। ফাইনালেও ব্রাভো ছিলেন দূর্দান্ত। ৩ ওভারে ২০ রানে ১ উইকেট। দলকে শিরোপা জেতাতে এ অবদানও কম কিসের।

Check Also

utiti7oo

মিশ্র’র চোটে কপাল খুললো কুলদীপের

আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে হায়দ্রাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে শুরু হবে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যেকার একমাত্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *