Home / খেলাধুলা / অস্ট্রেলিয়াকে বিধ্বস্ত করার সুবর্ণ সুযোগ পাকিস্তানের
68c6a1d425672e5846dcf5dbe32a3b36x600x400x33

অস্ট্রেলিয়াকে বিধ্বস্ত করার সুবর্ণ সুযোগ পাকিস্তানের

আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সফরে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ জয়ের সুর্বন সুযোগ রয়েছে পাকিস্তানের বলে মনে করেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক ও কোচ ওয়াকার ইউনিস। অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান খারাপ সময়টা কাজে লাগিয়ে প্রথম এশিয়ার দল হিসেবে প্রতিপক্ষের মাটিতে পাকিস্তানের সিরিজ জয় করা উচিত বলেও মন্তব্য করেছেন ওয়াকার। তিনি বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া বর্তমানে দুর্বল ও কোনঠাসা দল। তাই এই সুযোগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাকিস্তানের সিরিজ জয় করা উচিত।’

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এখন পর্যন্ত ১১টি সিরিজ খেলেছে পাকিস্তান। কিন্তু একটি সিরিজও জিততে পারেনি তারা। আসলে এশিয়ার কোন দলই অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এখন পর্যন্ত টেস্ট সিরিজ জিততে পারেনি। তবে এবার অসিদের মাটিতে তাদের বিধ্বস্ত করে সিরিজ জয়ের মোক্ষম সুযোগ বলে মনে করেন পাকিস্তানের হয়ে ৮৭টি টেস্ট ও ২৬২টি ওয়ানডে খেলা ওয়াকার। কারণ কি তাও খোলাসা করে বলে দিলেন ওয়াকার, ‘অস্ট্রেলিয়া টেস্ট দল এখন বেশ দুর্বল। তারা বেশ কোনঠাসা হয়ে রয়েছে। কারণ শ্রীলঙ্কা ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে পরপর দুটি সিরিজ হেরেছে অসিরা। মানসিকভাবেই তারা শক্তপোক্ত নয়। তাই এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে এশিয়ার প্রথম দল হিসেবে অস্ট্রেলিয়ায় সিরিজ জিততে পারে পাকিস্তান। সিরিজ জয়ের এখনই ভালো সুযোগ তাদের।’

সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডের মাটিতে দুই ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে হেরেছে পাকিস্তান। সিরিজ হেরে যাওয়ায় র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই ধাপ পিছিয়ে চার নম্বরে নেমে গেছে তারা। তবে নিউজিল্যান্ডের স্মৃতি ভুলে গিয়ে আসন্ন সিরিজে দলকে মনোযোগী হতে বললেন ৩৭৩টি টেস্ট ও ৪১৬টি ওয়ানডে উইকেটের মালিক ওয়াকার, ‘নিউজিল্যান্ডের মাটিতে কেমন পারফরমেন্স হয়েছে, এই নিয়ে বসে থাকার কোন প্রয়োজন নেই। নতুন করে আরেকটি সিরিজ শুরু হচ্ছে। কিভাবে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করা যায়, তা নিয়ে বেশি ভাবতে হবে। মাঠে নিজেদের শতভাগ ঢেলে দিতে হবে। আর তা করতে পারলেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জয় সম্ভব হবে। প্রতিপক্ষকে বিধ্বস্ত করতে ব্যাটসম্যান-বোলারদের সেরা পারফরমেন্সই করতে হবে।’

অস্ট্রেলিয়াকে ঘায়েল করার জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার কাছ থেকে প্রেরণাও নিতে পারে পাকিস্তান, জানান ৪৫ বছর বয়সী ওয়াকার। তিনি বলেন, ‘ওই সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম দুই টেস্টে অসিদের কোন সুযোগই দেয়নি ডু-প্লেসিসের দল। ঠিক তেমনিভাবে আসন্ন সিরিজে প্রতিপক্ষকে চাপে রাখা হবে। যাতে তারা উল্টো চাপে ফেলতে না পারে পাকিস্তানকে। তাই ওই সিরিজকে সামনে রেখে নিজেদের পরিকল্পনা সাজাতে পারে পাকিস্তান।’

ব্রিসবেনে আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট। আর মেলবোর্নে ২৬ ডিসেম্বর থেকে বক্সিং-ডে টেস্ট খেলবে দু’দল। ৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া সিডনি টেস্ট দিয়ে শেষ হবে তিন ম্যাচের সিরিজ। টেস্ট সিরিজ শেষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজও খেলবে অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তান।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মূল লড়াইয়ে নামার আগে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার একাদশের বিপক্ষে একটি তিনদিনের প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ খেলবে পাকিস্তান। যা শুরু হবে ৮ ডিসেম্বর।

Check Also

utiti7oo

মিশ্র’র চোটে কপাল খুললো কুলদীপের

আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে হায়দ্রাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে শুরু হবে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যেকার একমাত্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *